Slider

Theme images by kelvinjay. Powered by Blogger.

ভিডিও

রাজ্য

দেশ

খেলা

বিনোদন

আন্তর্জাতিক

ফটো গ্যালারি

» » » ভেঙে পড়ে নির্মীয়মাণ উড়ালপুল, রাস্তা অবরোধ করে খোভপ্রকাশ সাধারন মানুষের

উজ্জ্বল ভট্টাচার্য , শিলিগুড়ি, ১১ ই আগস্ট ' ২০১৮ঃ শিলিগুড়ি মহকুমার অন্তর্গত ফাঁসিদাওয়া এলাকায়  ভেঙে পড়লো   নির্মীয়মাণ উড়ালপুল।  শনিবার সকালে৷ 
ফাঁসিদেওয়ার কাছে কান্তিভিটা এলাকার  ভেঙে পড়া উড়ালপুলের একটি অংশ দেখতে পায় স্থানীয় বাসিন্দারা।  এরপর এ খবর ছড়িয়ে পরতেই ভিড় বারতে উৎসুক জনতার। খবর পেয়ে দুর্ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন  স্থানীয় পুলিশ,  প্রশাসন এবং ঐ উড়ালপূল নির্মাণকারী সংস্থার কর্মকর্তারা। 


শুক্রবার রাত ৩টা২০ মিনিট নাগাদ হঠাৎই হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে উড়ালপুলের একটি অংশ।  কাজ শেষ না হওয়ার আগেই এই  দূর্ঘটনার জন্যে  ক্ষোভে স্থানীয় বাসিন্দারা  এদিন সকাল থেকেই  বেশ কিছু সময়    জাতীয় সড়ক অবরোধ করে রাখে। স্থানীয় পুলিশ - প্রশাসন এই  ঘটনার তদন্তের নির্দেশের আশ্বাস দিলে  অবরোধ তুলে নেন অবরোধকারীরা।

এ ঘটনার বিষয়ে ঐএলাকার স্থানীয় মানুষ এবং পুলিশ -প্রশাসন সুত্রে জানা যায়,  শুক্রবার গভীর  রাতে
ফাঁসিদেওয়ার কাছে জাতীয় কান্তিভিটায় ৩১ডি জাতীয় সড়কের উপর ভেঙে পড়ে নির্মীয়মাণ উড়ালপুল বেশ কিছুটা অংশ। এই  ঘটনায় হতাহতের কোনো খবর না থাকলেও এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পরে ।
জানা যায়,  ফাঁসিদেওয়ায় জাতীয় সড়কের উপরে প্রায় একবছর ধরে কাজ চলছে  চার লেনের  ইস্ট-ওয়েস্ট করিডরের  কাজ।  সেখানেই  রাস্তার উপরে চলছিল এই  উড়ালপুল তৈরির কাজ।শুক্রবার রাত হঠাৎ করে  হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে উড়ালপুলের  অনেকটা অংশ।  স্থানীয় মানুষেরা  সকালে প্রথম দেখেতে পান,  এরপরেই স্থানীয়দের ভিড়ে এলাকায় ব্যাপক যানজট তৈরি হয়।এই দুর্ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে  নির্মাণকারী সংস্থার কর্মকর্তারা সহ  ইঞ্জিনিয়ররা। তাদের দেখে উত্তেজিত হয়ে ওঠে উপস্থিত সাধারন মানুষেরা । খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছোয়   ফাসিদাওয়া থানার পুলিশ। পুলিশ পৌঁছতেই রাস্তা অবরোধ শুরু করে উত্তেজিত মানুষেরা। এর ফলে ঐ এলাকার  জাতীয় সড়কে যানজটের দেখা দেয় ।
। পরে ফাঁসিদেওয়ার বিডিও এবং শিলিগুড়ির মহকুমাশাসক ঘটনাস্থলে পোঁছে অবরোধ কারিদের সাথে কথা বলে ও ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিলে অবরোধ তুলে নেন অবরোধ কারিরা।
কেন বা কি কারনে ভেঙে পড়েছে তার তদন্ত করছে সংশ্লিষ্ট  পুলিশ প্রশাসনের তদন্ত কারি কর্মীরা।


«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post