Slider

Theme images by kelvinjay. Powered by Blogger.

ভিডিও

রাজ্য

দেশ

খেলা

বিনোদন

আন্তর্জাতিক

ফটো গ্যালারি

» » » সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জী প্রকাশ করলেন নিঃশব্দ বিপ্লব ২০১৮.....

ডায়মন্ড হারবার লোকসভা কেন্দ্রের মাননীয় সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জীর  তাঁর কেন্দ্রের চার বছরের কাজের খতিয়ান সম্বলিত পুস্তিকা '' নিঃশব্দ বিপ্লব ২০১৮ ''প্রকাশ করলেন সরিষা হাই স্কুল গ্রাউন্ড মাঠে আয়োজিত হয় এক জনসমাবেশে। মাননীয় সাংসদ তাঁর ফেজবুক পেজে এই বার্তা দিয়ে তিন বছরের মাথায় লিখেছিলেন "আপনাদের সবার আশীর্বাদ,দোয়া আর ভালোবাসা প্রার্থনা করি. সাংসদ হিসেবে জনসাধারণের কাছে প্রতি বছর কাজের হিসাব দেওয়া আমার অন্যতম কর্তব্য।" পাশাপাশি তিনি ডায়মন্ড হারবার সহ বাংলার জনসাধারণ কে পাশে থাকার জন্য. ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছিলেন।

রাজ্যের ৪২ জন লোকসভার সাংসদ  মধ্যে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ই প্রথম যিনি জনতার দরবারে প্রতি বছর নিজের সাংসদ কোটার টাকা কত এবং কোথায় খরচ করলেন তার হিসাব তুলে ধর নয়া নজীর গড়ছেন। দায়বদ্ধতার খাতিরে এবার চার বছরের উন্নয়নের খতিয়ান দিয়ে পুস্তিকা প্রকাশ করে প্রকাশ্য জনসভার মাধ্যমে আমজনতার হাতে তুলে দেওয়ার এই নজির ভারতবর্ষে বিরল। প্রতি বছর "নিঃশব্দ বিপ্লব" নামের পুস্তিকা প্রকাশ করে উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরে ডায়মন্ড হারবার লোকসভা কেন্দ্রের  সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জী সাধারণ মানুষের মনের গভীরে প্রবেশ করতে পেরেছেন এবং তাঁদের বিশেষ ভালোবাসার মানুষ হয়ে উঠতে পেরেছেন। অভিজ্ঞ মহলের অভিমত বাংলার রাজনীতিতে অভিষেক ব্যানার্জী এখন তরুণ তুর্কী জননেতা হয়ে উঠেছেন। মানুষের ভালবাসার সাংসদ হিসেবে অভিষেক ব্যানার্জী দাগ কেটেছেন। জনসেবায় ও দেশ কল্যাণে মানুষের প্রতি গভীর ভালবাসা ও দায়বদ্ধতা দেখিয়েই প্রকৃত দেশনেতা রূপে নিজেকে তিল তিল করে গড়ে তুলেছেন অভিষেক ব্যানার্জী। শুধু তৃণমূল কংগ্রেস নয় বরং সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের আমজনতা একথা মানছেন। আগামী দিনে রাজ্যের মানুষের সুখে দুখে তিনিই পাশে থাকবেন তিনি এই বার্তাও দিয়েছেন।
"নিঃশব্দ বিপ্লব" প্রকাশ করছেন বাংলার আইকন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়,
রাজ্যের বিদ্যালয় শিক্ষা ও উচ্চশিক্ষামন্ত্রী ড. পার্থ চট্টোপাধ্যায়, সাংসদ তথা তৃনমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারন সম্পাদক সুব্রত বক্সী। তৃণমূল কংগ্রেস এর কয়েজন বিশিষ্ট নেতা-নেত্রী ছাড়াও এদিনের সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, ডায়মন্ড হারবারে বিধায়ক দীপক কুমার হালদার,ফলতার বিধায়ক তমোনাশ ঘোষ, সোনালী গুহ, ক্যানিং এর বিধায়ক শওকত মোল্লা, মহেশতলার বিধায়ক দুলাল দাস, দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলা তৃণমূল কংগ্রেস যোগ্য নেত্রী শামিমা শেখ প্রমুখ।

«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post